দুইশও করতে পারলো না মাহমুদউল্লাহ একাদশ

বিসিবি প্রেসিডেন্টস টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচে নাজমুল হোসেন শান্ত একাদশকে জয়ের জন্য ১৯৭ রানের লক্ষ্য দিয়েছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ একাদশ। মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দিবা-রাত্রির ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন নাজমুল শান্ত। আল আমিন-তাসকিনদের বোলিংয়ের তোপের মুখে ২০০ রানও স্পর্শ করতে পারেনি মাহমুদউল্লাহ একাদশ। ৪৭.৩ ওভারে ১৯৬ রান তুলতেই সবকটি উইকেট হারায় তারা।

আকাশে মেঘের ঘনঘটা থাকলেও নির্ধারিত সময়ের একটু পরেই টসে নামেন দুই অধিনায়ক। ব্যাটিংয়ে নামার পর ৩ ওভারে ১৭ রান তুলেছিল মাহমুদউল্লাহ একাদশ। এরপর বৃষ্টির কারণে ৪২ মিনিট খেলা বন্ধ থাকে। বৃষ্টির আগে দুই ওপেনার লিটন ও নাঈম ছন্দে থাকলেও বিরতিতে মনোযোগ হারান তারা। বৃষ্টির পর খুব দ্রুত সময়ের মধ্যেই সাজঘরে ফেরেন লিটন, নাঈম ও মুমিনুল হক।

২১ রানে ৩ উইকেট হারানোর পর চাপে পড়ে মাহমুদউল্লাহ একাদশ। সেখান থেকে ৬২ রানের জুটি গড়ে দলকে এগিয়ে নিচ্ছেন মাহমুদউল্লাহ ও ইমরুল। ইমরুল ব্যাটিংয়ে আগ্রাসন দেখালেও মাহমুদউল্লাহ ছিলেন মন্থর। তবে বেশিদূর আগায়নি ইমরুলের ইনিংস।স্পিনার নাঈম হাসান স্লগ করতে গিয়ে মিড উইকেটে সাইফ হাসানের হাতে ক্যাচ দেন ৪০ রানে। ৫০ বলে ৩ চার ও ১ ছক্কায় ইনিংসটি সাজান। সোহান নিজের ভুলে রান আউট হন ১৪ রানে।মাহমুদউল্লাহ আল-আমিনের বলে চার মেরে তুলে নেন হাফ সেঞ্চুরি। ৮০ বলে হাফ সেঞ্চুরি পেলেও ইনিংস বড় করতে পারেননি। পেসার মুগ্ধকে স্লগ খেলতে গিয়ে মিড উইকেটে ক্যাচ দেন ৫১ রানে। সাব্বির ভালো শুরুর পরই বাজে শটে মুগ্ধকে ফিরতি ক্যাচ দেন ২২ রানে।

About admin

Check Also

এই তামিমকে কী নামে ডাকবেন?

বাংলাদেশ অনূ,র্ধ্ব-১৯ দলের ও,পেনার তা,নজিদ হাসান তামিমের নাম নিয়ে বিড়ম্বনায় পড়েছেন জাতীয় দলের ওয়ানডে অধিনায়ক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *