বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবির ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৩০ জনের ম’রদেহ উ’দ্ধার করা হয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ডুব দিলেই




তাদের হাতে-পায়ে বাঁধছে ম’রদেহ। নি’হতদের খোঁজে এরই মধ্যে ছুটে এসেছে স্বজনরা। উ’দ্ধার হওয়া ম’রদেহ রাখা




হয়েছে সারি সারি উ’দ্ধারকর্মীরা জানান, নদীতে ডুব দিলেই মিলছে ম’রদেহ। উ’দ্ধার হয়ার ম’রদেহের তালিকায় রয়েছে




৫ জন নারী, ২৩ জন পুরুষ এবং ২ জন শি’শু। ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সদর দফতরের ডিউটি অফিসার

রোজিনা আক্তার জানান, লঞ্চটিতে কতজন যাত্রী ছিলেন আনুমানিক বলা যাচ্ছে না। তবে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ডুব




দিলেই তাদের হাতে-পায়ে ম’রদেহ বাঁধছে। এদিকে লঞ্চডুবির পর সেখানে উ’দ্ধার কার্যক্রম চালাচ্ছে ফায়ার সার্ভিস,

কোস্টগার্ড, নৌ বাহিনী ও সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিভাগের কর্মক’র্তা-কর্মচারিরা। এছাড়া স্থানীয় লোকজন সহায়তা করছেন। জানা




যায়, সোমবার সকাল নয়টার দিকে ময়ুর-২ নামের একটি লঞ্চের ধাক্কায় কমপক্ষে ৫০ জন যাত্রী নিয়ে ম’র্নিং বার্ড লঞ্চটি

ডুবে যায়। কেরানীগঞ্জের একটি ডকইয়ার্ড থেকে মেরামত শেষে ময়ূর-২ নদীতে নামানোর সময় ওই দুর্ঘ’টনা ঘটে বলে জানা গেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here