বেক্সিমকো ফার্মা’র ওষুধ ‘ইভেরা টুয়েলভ’ সেবনে মাত্র পাঁচ দিনে করোনা নিরাময়। ঢাকার দোহার থানার ১১ পুলিশ




সদস্যের ওপর প্রয়োগে মাত্র ৫ দিনেই সুফল পেয়েছেন চিকিৎসকেরা। এ নিয়ে রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে

৭০০ রোগীর মধ্যে ৬৬৫ জনই সুস্থ হয়েছে। চিকিৎসকেরা বলছেন, ইভেরা আইভারমেকটিন ও ডক্সিসাইক্লিন




একস”ঙ্গে ব্যবহারে ৯৫ শতাংশ করোনা পজিটিভ রোগীর নেগেটিভ ফল আসছে।দেশে বেড়েই চলছে করোনায় আ’ক্রান্ত

রোগীর সংখ্যা। করোনার প্রতিষেধক ও চিকিৎসা নিয়ে একযোগে নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেন চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা। এ




ক্ষেত্রে পিছিয়ে নেই বাংলাদেশও। করোনা মহা’মা’রিতে আশার আলো দেখাচ্ছে বেক্সিমকো ফার্মা’র ইভেরা টুয়েলভ নামের

ওষুধ। যার জেনেরিক নাম আইভারমেকটিন। ১৭ মে ঢাকার দোহার থানার ১৬ জন পুলিশ সদস্য করোনা আ’ক্রান্ত হলে




উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশন বিভাগে ভর্তি করা হয়। ১৯ মে ১২ জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজারবাগ

পুলিশলাইন হাসপাতালে পাঠানো হয়। ১২ জনের মধ্যে ১১ জনকে বেক্সিমকোর উৎপাদিত ওষুধ ‘ইভেরা টুয়েলভ’ সাথে




ডক্সিসাইক্লিন দেয়া হয়। পাঁচদিন পর করোনা পরীক্ষায় ১১ জনই নেগেটিভ হন। যাকে খাওয়ানো হয়নি তিনই এখনো

পজেটিভ।কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানান, করোনা রোগীকে প্রতিদিন একটি ১২ মিলিগ্রাম

আইভারমেকটিন ও একটি ১০০ মিলিগ্রাম ডক্সিসাইক্লিন ওষুধ খাওয়ানো হয়। এভাবে এখন পর্যন্ত ৭০০ রোগীর ওপর এ

ওষুধ প্রয়োগ করে ৯৫ ভাগ সুফল মিলেছে। করোনা মহা’মা’রির মতো জরুরি অবস্থায় এসব ওষুধ ব্যবহারে নিরুসাহিত করছে না বিশেষজ্ঞদের। তবে, চূড়ান্ত সি’দ্ধান্তের আগে আরো গবেষণার তাগিদ তাদের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here